Breaking News
Home / ক্রাইম / ঝিনাইগাতীতে ৫ একর জমির মিশ্র বাগানের গাছ কেটে দিয়েছে

ঝিনাইগাতীতে ৫ একর জমির মিশ্র বাগানের গাছ কেটে দিয়েছে

শেরপুর)প্রতিনিধি;
শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে ৫ একর জমির মিশ্র বাগানের গাছ কেটে দিয়েছে বন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। ঘটনাটি ঘটে ৫ মার্চ মঙ্গলবার ভোরে। জানা যায়, আধিপত্য বিস্তারের ঘটনাকে কেন্দ্র করে বন কর্মচারীরা এ ঘটনা ঘটায়। উপজেলার রাংটিয়া রেঞ্জের গজনী বিটের গান্ধিগাঁও এলাকায় ২০১৩-১৪ অর্থ বছরে ৫ হেক্টর

জমিতে মিশ্র বাগান গড়ে তোলা হয়। নেয়া হয় ১৭ জন অংশীদার। ওই মিশ্র বাগানের সভাপতি তছর আলীসহ অন্যান্যরা জানায়, বাগানটি গড়ে তোলার সময় বন বিভাগ শুধু তাদের চারার ব্যবস্থা করে দেন। তারা শ্রম দিয়ে বাগানটি গড়ে তোলেছেন বলে জানান। তাদের দাবি বাগানটি উপজেলা বন উন্নয়ন কমিটির সভায় রেজুলেশনও করা হয়েছে।কিন্তু ওই বাগানের অংশীদার গজনী ফরেষ্ট বিটের বন ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি দুলাল মিয়া রাংটিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল

মামুনের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম, অব্যবস্থাপনা ও দূর্নীতির অভিযোগ করেন সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে। এ নিয়ে রেঞ্জ কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে দুলালের বিরুদ্ধে। আর এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার ভোরে রেঞ্জ কর্মকর্তার নেতৃত্বে বন কর্মচারীরা ওই বাগানের বিভিন্ন প্রজাতির প্রায় ১ হাজার কেটে দেয়। এতে প্রায় ১০ লক্ষ টাকার ক্ষতি সাধন হয় বলে দাবি অংশীদারদের। কেটে দেয়া গাছের মধ্যে রয়েছে পেয়ারা, আম, লেবু, লিচু, জলপাই, আমলকি, হরতকী, বহেরা

ইত্যাদি।এ ব্যাপারে রাংটিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুনের সাথে যোগাযোগের চেষ্ঠা করে তাকে পাওয়া যায়নি। ফোনও ধরেননি তিনি। ঝিনাইগাতী উপজেলা পরিবেশ ও বন উন্নয়ন কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবেল মাহমুদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। শেরপুরের সহকারী বন সংরক্ষক ডঃ প্রাণতোষ রায়ের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, মিশ্র বাগানে লেবু, আম, জাম, নেই। তার দাবি বাগানটি দুলালের জবর দখলে ছিল। গাছ কেটে দিয়ে জমি উদ্ধার করা

হয়েছে।

সর্বশেষ আপডেটঃ ২:৪৯ অপরাহ্ণ | মার্চ ০৬, ২০১৯

Check Also

ময়মনসিংহে ডিবি’র অভিযানে ইয়াবা ও হেরোইনসহ ৪ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার।

স্টাফ রিপোর্টার ঃ ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা অফিসার- ইনচার্জ পুলিশ মোঃ শাহ কামাল আকন্দ পি.পি.এম (বার) …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *