Breaking News
Home / ক্রাইম / ত্রিশালে বাট্রা রশিদের বিরুদ্ধে চেক জালিয়াতি ও জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে

ত্রিশালে বাট্রা রশিদের বিরুদ্ধে চেক জালিয়াতি ও জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে

সজিব ঃ ময়মনসিংহ জেলার ত্রিশাল উপজেলার ২নং ওয়ার্ডের উজানপাড়ার বাসিন্দা মৃত আব্দুল কাদের মুন্সির ছেলে আব্দুর রশিদের বিরোদ্ধে চেক জালিয়াতি ও অনৈতিক কর্মকান্ডের গুরুতর অভিযোগ উঠেছে।

ভুক্তভোগী মতিউজ্জামন মতিউর (৪৫) পিতাঃ মৃত আলীম উদ্দিন ত্রিশাল পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড উজানপাড়ার বাসিন্দা। ত্রিশাল উজানপাড়া আলীম মাদ্রাসায় ৪র্থ শ্রেণী দফতরীর চাকুরী করেন মতিউজ্জামন মতিউর বলেন, বিশেষ কারণে

আব্দুর রশিদের কাছ থেকে ষাট হাজার (৬০,০০০) টাকা নেন চেকের মাধ্যমে। উক্ত টাকা প্রতি মাসে বেতনের ৫০০০ টাকা থেকে ৩০০০ টাকা চেকের মাধ্যমে উত্তোলন করার কথা কিন্তু বেতনের পুরো ৫০০০ হাজার টাকা উত্তোলন করে আব্দুর

রশিদ। একটি চেক বইয়ের ১০ টি পাতা শেষ হলে পুনরায় আরেকটি বইয়ের ১০টি পাতা দেওয়া হয়। ২০ চেকের পাতা দেওয়া হয় তাকে ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা দেওয়ার কথা হয় এবং দেওয়া হয় ১৩/০৮/২০১৪ সাল থেকে ০২/০৮/২০১৮

সাল পযর্ন্ত। কিন্তু ২০ পাতা শেষ হলে আরো নতুন করে ৩টি চেক বইয়ের ৪৭ পাতা জাল করে আমার একাউন্ট অগ্রণী ব্যাংক ত্রিশাল শাখা সঞ্চয়ী হিসাব নং ৩৪০০২৮৪৩ থেকে জালিযাতি করে টাকা উত্তোলন করেন। চেক চাওয়া হলে কাল

বিলম্ব করতে থাকেন। কিন্তু এখন পযর্ন্ত আমার বেতনের টাকা উত্তোলন করছে রশিদ। আমাকে হত্যার হুমকি পযর্ন্ত দেয় আমি ভয়ে ভয়ে রাত যাপন করছি। অনেক কষ্টে দিন যাপন করছি। থানায় মিথ্যা মামলা করে হয়রানি করছে।

আমি অনেক জনের ধারে ধারে ঘুরে কোন পথ না পেয়ে ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপারের বরাবরে অভিযোগ দায়ের করি। ত্রিশাল থানায় অভিযোগ আসছে। স্থানীয় ওয়াইম্যাক্স স্পোর্টিং ক্লাবের সভাপতি আঃ রহমান বিপ্লব ও সাধারণ

সম্পাদক প্রকৌশলী শরীফ সাবের (মনির) বলেন, ৮/১০ বছর আগে আব্দুর রশিদ রাস্তায় রাস্তায় লুঙ্গি ও গামছা বিক্রয় করে দিন যাপন করতো। বর্তমানে কোটি কোটি টাকার মালিক শুধু ত্রিশালেই রয়েছে ৪টি আলিশান বাড়ি। নামে বেনাম রয়েছে অনেক জায়গা। টাকার জন্য যে কোন কাজ করতে

দ্বিধা করেন না তিনি । মেয়ে লোক নিয়েও রয়েছে অনৈতিক কর্মকান্ড। উজানপাড়ার স্থানীয় ইটের ব্যাপারী মোফাজ্জল হোসেন বলেন, আব্দুর রশিদ একজন ভুমিদস্যু । সে এত কালো টাকার পাহাড় গড়ে তোলেছে যে কেউ তার বিরুদ্ধে মুখ খুলতে সাহস পায় না, এমন কি স্থানীয় সাংবাদিক পযর্ন্ত ভয় পায় তার অপকর্মের কারণে। পৌরসভার রাস্তা বাউন্ডারী দিয়ে

অবৈধভাবে ভোগ দখল করে আসছে। তার অত্যাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ট।মোফাজ্জল হোসেন আরও বলেন, আমার নিজের জায়গা জোর করে বাউন্ডারি নিমার্ণ করেছে। রাস্তা কেটে দেওয়াল তুলেছে কেউ তার বিরুদ্ধে কথা বললে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করে আমরা এর বিরুদ্ধে সুষ্ঠ তদন্ত করে আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবী করছি কিন্তু কেউ এগিয়ে আসছে না।
হাফেজ মোঃ মাওলানা হাবিবুল্লাহ মোজাহেদ বলেন, শুধু মতিউর হয় হয়রানি স্বীকার না, আঃ মতিন আরবী

শিক্ষক,আঃ বারেক নৈশ প্রহরী,মজিবুর রহমান দু:খু মিয়া হাই স্কুলের ল্যাব টেকনিশিয়ান, ইব্রাহীম মান্টার এর কারণে মৃত্যু বরন করেছেন,আঃ মতিন ইসলামী একাডেমি স্কুল এন্ড কলেজ কম্পিটার শিক্ষকসহ প্রায় ৫০০ জনের চেক বই তার কাছে কাছে। অগ্রণী ব্যাংকের ম্যানেজারের সাথে মিলে চেক রশিদ এ কাজ করছে।
এ ব্যাপারে ত্রিশাল অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপক খাইরুজ্জামান আরিফ আঃ রশিদের ব্যাপারে কথা বলতে অস্বীকার করেন।

তিনি বলেন, যে কেউ চেক নিয়ে আসলে ব্যাংক টাকা দিতে বাধ্য। তিনি আরো বলেন, এক ব্যক্তি অনেক গুলো চেক নিয়ে আসলেও টাকা দেওয়া হয় যদি চেকের স্বাক্ষর ঠিক থাকে।

আমার কাছে কেউ অভিযোগ করেনি। করলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি। এ ব্যাপারে আব্দুর রশিদের সাথে ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি কথা বলতে অস্বীকার করেন।

সর্বশেষ আপডেটঃ ১:১৩ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ০১, ২০১৯

Check Also

১২নং ওয়ার্ডের স্থানীয় বসবাসকারীদের নিরাপত্তার স্বার্থে ডিফেন্স পার্টির কার্যক্রম বৃদ্ধি

মোমেনশাহী ডেক্সঃ স্থানীয় এলাকার শান্তি ও নিরাপত্তার স্বার্থে যাবতীয় অন্যায় দুর করে সিটি কর্পোরেশনের ১২ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *